1. admin@sobujnagar.com : admin :
  2. sobujnoger@gmail.com : Rokon :
রবিবার, ২৩ জুন ২০২৪, ০৩:৪২ পূর্বাহ্ন
সর্বশেষ:
উপকূল সুরক্ষায় বিশেষ পরিকল্পনা গ্রহণের আহ্বান তানোর খাদ্যগুদামে দারোয়ানদের দৌরাত্ম্য বাঘায় পাল্টা পাল্টি কর্মসূচি আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপের, সংঘর্ষে আহত অর্ধশতাধিক সিপিএসসি, র‌্যাব-৫, রাজশাহী কর্তৃক ভিকটিম উদ্ধার, অপহরণকারী  গ্রেফতার গাজা অফিসের কাছে হামলায় ২২ জন নিহত : রেডক্রস নয়াদিল্লির রাষ্ট্রপতি ভবনে প্রধানমন্ত্রীকে আনুষ্ঠানিক সংবর্ধনা রাসেল ভাইপার নিয়ে আতঙ্ক নয়, বাড়াতে হবে সাবধানতা ও সচেতনতা : পরিবেশ মন্ত্রণালয় সিলেট ও সুনামগঞ্জে বন্যায় ২০ লাখের বেশি মানুষ ক্ষতিগ্রস্ত : ইউনিসেফ গোপালগঞ্জের মুকসুদপুরের সেই গাছ কি আদৌ কথা বলে? আওয়ামী লীগ কচু পাতার উপর শিশির বিন্দু নয়: ওবায়দুল কাদের

খুলনা প্রকৌশল প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে সুবর্ণ জয়ন্তী পালিত

  • প্রকাশের সময় : সোমবার, ৩ জুন, ২০২৪
  • ১৬ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

# শহিদুল্লাহ আল আজাদ. খুলনা ব্যুরোঃ খুলনা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (কুয়েট) এর ভূতপূর্ব প্রারম্ভিক প্রতিষ্ঠান খুলনা ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজ এর একাডেমিক কার্যক্রম শুরুর ৫০ বছর পূর্তি সুবর্ণ জয়ন্তী উদ্যাপিত হয়েছে।

ভৈরব-রূপসা বিধৌত এ পাদপীঠে দিনটিকে স্মরণীয় করে রাখতে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন বিভিন্ন অনুষ্ঠানের মধ্যদিয়ে সোমবার (৩ জুন) আয়োজন করে। অনুষ্ঠানের মধ্যে সকাল সোয়া ৯টায় প্রশাসনিক ভবনের সামনে প্রীতি সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। সাড়ে ৯টায় জাতীয় সঙ্গীতের সঙ্গে সঙ্গে জাতীয় পতাকা ও বিশ্ববিদ্যালয়ের পতাকা উত্তোলন করা হয়।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তৃতা করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মিহির রঞ্জন হালদার। এসময় ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মিহির রঞ্জন হালদার বলেন, “শিক্ষা ও গবেষণায় আমাদের আরো মনোনিবেশ করতে হবে। সকলের একনিষ্ঠতায় বিশ্বদরবারে কুয়েট নিশ্চয়ই অতি দ্রুত মর্যাদাকর অবস্থান নিশ্চিত করতে সক্ষম হবে”।

এসময় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তৃতা করেন প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. সোবহান মিয়া ও এ প্রতিষ্ঠানের প্রথম ব্যাচের শিক্ষার্থী এবং কুয়েট এ্যালামনাই এসোসিয়েশনের প্রেসিডেন্ট প্রফেসর ড. বাসুদেব চন্দ্র ঘোষ স্বাগত বক্তৃতা করেন রেজিস্ট্রার প্রকৌশলী মো. আনিছুর রহমান ভূঞা এবং সঞ্চালনা করেন জনসংযোগ ও তথ্য শাখার সহকারী পরিচালক মনোজ কুমার মজুমদার।

বক্তৃতা শেষে অতিথিবৃন্দ বেলুন ও শান্তির প্রতীক কবুতর উড়িয়ে এবং কেক কেটে বিশ্ববিদ্যালয় দিবসের শুভ উদ্বোধন করেন। এরপর সকাল সাড়ে ৯টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনের সামনে থেকে বর্ণাঢ্য আনন্দ র‌্যালি শুরু হয়ে ফুলবাড়িগেট ঘুরে ক্যাম্পাসে এসে শেষ হয়। র‌্যালিতে প্রথম ব্যাচসহ বিভিন্ন ব্যাচের শিক্ষার্থীবৃন্দ, অতিথিবৃন্দ, বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, কর্মকর্তা, কর্মচারীবৃন্দ অংশগ্রহন করেন।

উল্লেখ্য, ১৯৬৭ সালে খুলনা ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজ হিসেবে প্রতিষ্ঠিত হয়ে, ১৯৬৮ সালে ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন এবং ১৯৭৪ সালের ৩ জুন জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের বিশেষ নির্দেশনায় একাডেমিক কার্যক্রম শুরু হয়ে ১৯৮৬ সালের ১ জুলাই এ প্রতিষ্ঠানটি বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজী (বিআইটি), খুলনায় পরিণত হয় এবং ২০০৩ সালের ১ সেপ্টেম্বর খুলনা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে রূপান্তরিত হয়।#

এই সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রযুক্তি সহায়তায় সিসা হোস্ট